রামগড়ে ট্রাক-সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৪জন আহত;নিহত ১

শ্যামল রুদ্র
খাগড়াছড়ির রামগড়ের দারোগাপাড়া এলাকায় ট্রাক ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে একই পরিবারের ৪জন গুরুত আহত এবং একজন নিহত হয়েছেন।দূর্ঘটনায় রামগড় নুরানি মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা কাজী শামসুদ্দিন নিহত হয়েছেন। রবিবার বিকেল ৫টায় দারোগাপাড়ার কাউন্সিলর আবুল কাসেমের বাড়ির সামনে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।দূর্ঘটনায় আহত আরো ৪জনকে সংকটজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
আহতরা হলেন মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম(১৮),সিএনজি চালক মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক(১৮),নুরুল আমিন(৫৫),নুরুল আমিনের মেয়ে রাজিয়া খাতুন(২০)
নিহতের প্রত্যক্ষদর্শী এক স্বজন জানান,পারিবারিক একটি বৈঠকে যোগ দিয়ে নিহত ও দূর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিরা নাকাপা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন।
‌বাড়ি ফেরার পথে দারোগাপাড়া এলাকায় পৌঁছালে দূর্ঘটনার কবলে পড়া সিএনজি অটোরিকশাটি অন্য একটি সিএনজি অটো রিক্সা কে ওভারটেকিং করতে গেলে বিপরীত দিক থেকে ধেয়ে আসা পাথরবাহী একটি ট্রাকের(যশোর-ট-১১-২২-০৫)সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।সংঘর্ষে সিএনজি চালক সহ ৫জন গুরুতর আহত হয়।স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে রামগড় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।দূর্ঘটনায় নিহত মাওলানা কাজী শামসুদ্দিন কে আহত অবস্থায় ফেনী আল কেমি হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রাত ১০টা ৪৫ মিনিটে তিনি মারা যান।
রামগড় থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ মুজিবুর রহমান বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত ট্রাক ও সিএনজি অটোরিকশাটি আটক করা হয়েছে।যাত্রীবাহী সিএনজি অটোরিক্সাটি অন্য একটি সিএনজি কে ওভারটেকিং করতে চাইলে এই দূর্ঘটনার কবলে পড়ে। রামগড় থানায় মামলার প্রস্তুুতি চলছে।